দেশের বাজারে এল হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো।

দেশে ওয়াই৬ প্রো মডেলের স্মার্টফোন বাজারজাত শুরু করেছে হুয়াওয়ে। একবার চার্জে দীর্ঘক্ষণ মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে হ্যান্ডসেটটি, দাবি নির্মাতাদের।

ওয়াই৬ প্রো-এর ফ্ল্যাগশিপ ফিচারগুলোর মধ্যে রয়েছে, ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার-আওয়ার ব্যাটারি, পাওয়ার সেভিং ৩.০ প্রযুক্তি, ‘গতানুগতিক স্মার্টফোনগুলোর তুলনায় দুইগুণ বেশি দ্রুত চার্জ হওয়ার ক্ষমতা’ আর ‘কুইক চার্জিং’।

কুইক চার্জিংয়ের মাধ্যমে ফোনে একদম শূন্য চার্জ থাকা অবস্থায় মাত্র ১০ মিনিট চার্জ দিলেই রিজার্ভে থাকা চার্জে টানা তিন ঘন্টা ফোন ব্যবহার করা যায়। এ ছাড়া রিভার্স চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় ফোনটিকে ব্যবহার করা যাবে পোর্টেবল বা বহনযোগ্য চার্জার হিসেবে।

স্বল্প বাজেটের হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো-তে আছে পোর্টেবল বা বহনযোগ্য চার্জার, এফ২.২ অ্যাপারচার ও ওয়াইড অ্যাঙ্গেল রেঞ্জ প্রযুক্তি সম্বলিত ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। এ ছাড়া ব্যাকলিক মোড প্রযুক্তি ব্যবহার করে ছবি অনেক ‘বেশি মানসম্মত’ করে ফেলা যায়। আরও আছে হাই স্পিড ক্যাপচার মোড, আল্ট্রা ফাস্ট স্ন্যাপশট, অটোফেস ডিটেকশন এবং ছবি সম্পাদনা সফটওয়্যার।

৫.১ ললিপপ অপারেটিং সিস্টেমে চালিত হুয়াওয়ে ওয়াই৬ প্রো-তে রয়েছে দুই গিগাবাইট র্যাম এবং ১৬ গিগাবাইট রম। থিম ও অন্যান্য অ্যাপ ফিচার কাস্টমাইজ করতে আছে হুয়াওয়ে ইএমইউআই ৩.১ লাইট। মেটাল কোটিং বডির হ্যান্ডসেটটি ৮.৫ মিলিমিটার পুরু।

৫ ইঞ্চির এইচডি স্ক্রিনসমৃদ্ধ ওয়াই৬ প্রো-এর ব্যাক সাইড বা পেছনের দিকে ব্যবহার করা হয়েছে আর্গোনোমিক ওয়াটার-কার্ভড বা বাঁকানো প্রযুক্তি। প্রায় ৫ হাজার ভিন্ন ভিন্ন পদ্ধতি টানা পাঁচদিন ব্যবহার করে আর্গোনোমিক ওয়াটার-কার্ভড নকশা তৈরি করা হয়েছে যা দিনের আলো এবং ছায়াতে ভিন্ন সৌন্দর্য ধারণ করে, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম-কে পাঠানো এক বার্তায় এমনটাই দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

দেশের বাজারে ওয়াই৬ প্রো’র মূল্য ১৫,৯৯০ টাকা। সঙ্গে থাকছে এক বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা।

Leave a Reply