কোথায় সমস্যা, সৌম্য নিজেও জানেন না

অনেকদিন ধরেই দুঃসময় ছায়া হয়ে আছে। রান করাটা যেন দুঃসাধ্যর চেয়েও বড় কিছু হয়ে দাঁড়িয়েছে। আগের সেই দুর্বার চেহারায় ফেরাই হচ্ছে না সৌম্য সরকারের। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হওয়াটাই যেন অমোঘ নিয়তি হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ ওপেনারের।

তবু সুযোগ পেয়েছিলেন আফগানিস্তান সিরিজে। কিন্তু তিন ম্যাচেই থেকেছেন অচেনা চেহারায়। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে প্রস্তুতি ম্যাচেও ব্যাটকে কথা বলাতে পারেননি। ইংল্যান্ড সিরিজে তাই সৌম্যর ওপর আর ভরসা রাখেনি বাংলাদেশ। তিন ম্যাচেই বসে থেকেছেন দর্শক সারিতে।

ইংলিশদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের আগে দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে রাখা হয়েছে সৌম্যকে। দুই প্রস্তুতি ম্যাচের একটিতে অধিনায়কও করা হয়েছে তাকে। কিন্তু সব আলোচনা ছাপিয়ে প্রশ্ন উঠছে সৌম্যর সমস্যা কোথায়? শুক্রবার চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে প্রশ্নটা করা হলো সৌম্যকেই। কিন্তু সৌম্য জানালেন, নিজের সমস্যার ব্যাপারটি এখনো বুঝে উঠতে পারেননি।

গেল ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও ব্যাট হাতে নিজের ছায়া হয়ে থাকা সৌম্য নিজের সমস্যার ব্যাপারে বলছেন, ‘সমস্যাটা কোথায় নিজেও জানি না। সব সময়ই চেষ্টা করি এটা থেকে বের হওয়ার জন্য। সবার ক্ষেত্রে এমন সময় আসে। কে কতো দ্রুত বের হতে পারে, সেটাই হচ্ছে বিষয়। ভালো হয়েছে আমার ক্যারিয়ারের শুরুতেই এটা আসছে। যদি এটা কাটিয়ে উঠতে পারি খুব ভালো হবে।’

সাধারণত টানা বাজে সময় গেলে সিনিয়র ক্রিকেটার, কোচ বা মনোবিজ্ঞানিদের দ্বারস্থ হন ব্যাটসম্যানরা। সৌম্যও এর ব্যতিক্রম নন। বাজে সময় কাটিয়ে উঠতে বাঁহাতি এই ওপেনারও একই কাজ করছেন, ‘হ্যাঁ কথা চলছে। সব চেষ্টাই করছি। দেখা যাক কোনটাতে সফল হই। অনেক ভালো কথায় কাজ হয় না। অনেক সময় সাধারণ মানুষের একটা কথাও কাজে লাগে।’

গেল বছর নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে ইনজুরিতে পড়তেই যেন দুঃসময় জেকে ধরে বাংলাদেশের হয়ে ৩ টেস্ট, ১৯ ওয়ানডে ও ১৯ টি-টোয়েন্টি খেলা সৌম্যকে। এরপর বিপিএল দিয়ে ফিরলেও সৌম্যের ব্যাটে রান ফেরেনি। চলতি বছরের মার্চ-এপ্রিলে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি। গেল প্রিমিয়ার লিগে করেছেন মাত্র একটি হাফ সেঞ্চুরি (৮৪)।

তবে এতো পেছনে দৃষ্টি দিচ্ছেন না বাঁহাতি এই ড্যাশিং ওপেনার। নিজেকে ফিরে পাওয়ার সব চেষ্টাই করে যাচ্ছেন। টেস্টের আগে নিজেকে প্রমাণ করতে মনোযোগ দিচ্ছেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচের দিকে। সব সময়ের মতো এই প্রস্তুতি ম্যাচেও ভালো শুরুর অপেক্ষায় তিনি, ‘সব সময়ই ফ্রেশ শুরু করতে চাই। সেরা সময়ে যেভাবে খেলতাম, তেমনই শুরুর চেষ্টা করবো।’

তথ্যসূত্রঃ প্রিয়.কম

Leave a Reply